Thursday, 5 November 2015

একাধিক সিঙ্গেল ফেজ এসি জেনারেটর বা সিঙ্গেল ফেজ অল্টারনেটর কী ভাবে এক সাথে চানালো হয়?



একাধিক সিঙ্গেল ফেজ এসি জেনারেটর বা সিঙ্গেল ফেজ অল্টারনেটর কী ভাবে এক সাথে চানালো হয়?(অল্টারনেটর এর সিঙ্ক্রোনাইজেশন পদ্ধতি ,ডার্ক ল্যাম্প মেথড এবং ব্রাইট ল্যাম্প মেথড)
সাধারনত বেশী পাওয়ার ক্যাপাসিটির জন্য একাধিক অল্টারনেটর একসাথে চালানোর দরকার পড়ে। যে কমন কন্ডাক্টরের সঙ্গে অল্টারনেটর গুলি একসাথে যুক্ত থাকে তাকে বলা হয় বাস বার।
এখন চাইলেই দুটো অল্টারনেটর একসাথে লাগিয়ে দেওয়া যায়না।এদের একসাথে চলতে হলে বেশ কিছু শর্ত মানতে হয়।
যেমন –
১।দুটি অল্টারনেটরের আউটপুট ভোল্টেজ,ফ্রীকোয়েন্সী,আউটপুট ওয়েভসেপ এবং ফেজ একই হতে হবে।
২।তারা আলাদা পাওয়ার রেটিং এর হতে পারে।
৩।দুটির প্রাইম মুভারের-ই লোড ভার্সেস স্পীড ক্যারেক্টার একই হতে হবে।
যদি দুটি অল্টারনেটরের ভোল্টেজ, ফ্রীকোয়েন্সী এবং ফেজ সমান না হয় তা হলে যদি দুটি কে একসাথে চালালে সারকুলেটিং কারেন্ট ফ্লো করবে আর্মেচারের মধ্য দিয়ে, ফলে পুরো ওয়াইন্ডিং টাই জ্বলে যাবে।
দুটি মেসিনের ভোল্টেজ আউটপুট একই কিনা তা একটা ভোল্টমিটার দিয়ে সহজেই মেপে নেওয়া যায় কিন্তু ফেজ এবং ফ্রীকোয়েন্সী মাপতে ঝামেলা অনেক।
একটি সহজ উপায় আছে। দুটি ল্যাম্পের সাহায্যে আমরা সহজে দুটি মেসিনের আউটপুটের তুলনা করতে পারব।
কানেকশন টা করতে হবে ডায়াগ্রামের মতো করে।

                 

 এখানে “এ’ অল্টারনেটর টি চলছে “বি” এবং “সি” কে জুড়তে হবে।ডটেড লাইন টা হল কল্পিত সিরিজ সার্কিট।
কন্ডিশন ১।
 যদি দুটি অল্টারনেটরের ভোল্টেজ, ফ্রীকোয়েন্সী এবং ফেজ(লোকাল সিরিজ সার্কিট এর সাপেক্ষে) সমান হয়, তা হলে ল্যাম্প “১”এবং ল্যাম্প “২” কোনো ভোল্টেজ অনুভব করবে না।বলে ডার্ক থাকবে।এই সময় দুটি অল্টারনেটর কে সরাসরি লাগানো যেতে পারে।
কন্ডিশন ২।
যদি ল্যাম্প দুটি জ্বলা নেভা করতে থাকে তার মানে ফ্রীকোয়েন্সী ম্যাচ করছে, এখন প্রাইম মুভারের স্পীড কন্ট্রোল করে ম্যাচ করাতে হবে।যখন দুটোর ফ্রীকোয়েন্সী একেবারে কাছাকাছি চলে যাবে তখন জ্বলা নেভার স্পীড খুব স্লো হয়ে আসবে। যতটা সম্ভব স্লো করে যায় ততই ভালো।
ডার্ক পিরিয়ড এর মাঝামাঝি সময়ে লোকাল সিরিজ সার্কিট এর সাপেক্ষে দুটো ভোল্টেজ বিপরীত ফেজে থাকে। এই ডার্ক পিরিয়ডের মাঝখানেই সিঙ্ক্রোনাইজিং করা হয়ে থাকে।
কন্ডিশন ৩।
অনেক ইঞ্জিনিয়র ডার্ক পিরিয়ডের মাঝে সিঙ্ক্রোনাইজ করতে পছন্দ করেন না। তারা ব্রাইট পিরিয়ডে করতে পছন্দ করেন। তার জন্য অল্টারনেটর “সি” এর মতো উলটো করে কানেকশন করতে হবে।এখন সিঙ্ক্রোস্কোপ নামে একটা যন্ত্র দিয়ে এটা অটোমেটিক ভাবে করা যায়।
আর এই পর্যন্তই।কোনো প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে করতে পারেন। ধন্যবাদ আপনাকে।
ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স নিয়ে লেখালেখি করি এখানে আমার ব্লগে


ফেসবুকে টেকনোলজি নিয়ে আমাদের আড্ডা ফেসবুক গ্রুপে