Sunday, 22 May 2016

আমরা জানি দুটি কন্ডাকটিভ মেটালিক প্লেটের মাঝে কোনো কুপরিবাহী বা ডাইইলেকট্রিক পদার্থ রাখলে ক্যাপাসিটর ফর্ম করে।তা হলে ক্যাপাসিটর এর পোলারিটি আসে কী ভাবে? মানে একটা লেগ পজিটিভ আর একটা লেগ নেগেটিভ কেন হয়? আর পোলারিটির প্রয়োজন টাই বা কিসের?


পোলারাইজড ক্যাপাসিটরের পোলারিটি আসে তার অভ্যন্তরীন গঠনের জন্য।ম্যানুফ্যাকচারিং করার সময় এনোড হিসাবে একটা মেটালিক পাত নেওয়া হয় এরপর তাকে অক্সিডাইড করে তার উপর একটা মেটাল অক্সাইডের পাতলা আস্তরন ফেলা হয় যেটা তড়িতের কুপরিবাহী।এই পাতলা লেয়ার টাই ডাইইলেকট্রিক হিসাবে কাজ করে।অন্যদিকে ক্যাথোড হিসাবে ব্যবহার করা হয় সলিড বা লিকুইড ইলেক্ট্রোলাইটিক এর একটা মোটা স্তর।
এই ভিন্নতার কারনেই যখন দুটি টার্মিনালে ভোল্টেজ প্রদান করা হয় তখন দুটি ভিন্ন মাত্রার ইলেকট্রিক ফিল্ড সৃষ্টি হয় এবং ক্যাপাসিটর তার পোলারিটি পায়। মজার জিনিস হল এর ফলে কম আয়তনে অনেক বেশী ক্যাপাসিটেন্স ভ্যালু সৃষ্টি করা । একই ভ্যালুর যদি নন পোলারাইজড বা সিরামিক ক্যাপাসিটর বানানো হয় তা হলে অনেক বড় হবে এবং খরচ ও অনেক বেশী হবে।
এবার একটা কথা বলছি(আপনারা কতটা সহমত হবেন জানিনা)আসলে পোলারাইজড ক্যাপাসিটর এর তেমন কোনো প্রয়োজন নেই আপনি একই ভ্যালুর নন পোলারাইজড ক্যাপ দিয়ে কাজ চালিয়ে নিতে পারবেন।
তা হলে কেন আমরা পোলারাইজড ক্যাপ ব্যবহার করি।

১। প্রথমত একই ভ্যালুর জন্য পোলারাইজড ক্যাপ এর দাম তুলনায় কম
২।মনে করুন আপনি কোনো সিগ্ন্যাল ফিল্টারিং এর জন্য ক্যাপ সিরিজে লাগাবেন,সেখানে স্বাভাবিক ভাবেই ইনপুট আউটপুট এর থেকে পজিটিভ থাকবে। সেখানে যদি একই ভ্যালুর নন পোলারাইজড ক্যাপ ব্যবহার করেন তা হলে ক্যাপ এর সাইজ ও দাম দুটোই বেশী হবে।সেই একি কাজ পোলারাইজড ক্যাপ ব্যবহার করে করলে সাইজ ও দাম দুটোই কম হবে।
নোটঃ যে সার্কিট আপনি নিজে ডিজাইন করেননি, সেখানে সব পোলারাইজড ক্যাপ গুলো কে সে্ম ভ্যালুর ননপোলারাইজড ক্যাপ দিয়ে রিপ্লেস করতেই পারেন। কিন্তু উল্টোটা ভুলেও করবেন না মানে যেখানে নন পোলারাইজড ক্যাপ দিয়ে রিপ্লেস করবেন না কারন রিভার্স ভোল্টেজের পিক ভ্যালু আপনি জানেন না।
আবার টপিকে ফিরে আসি……
তা হলে প্রশ্ন আসে কম টাকায় কম যায়গায় পোলার ক্যাপ এ যদি কাজ হয়ে যায় তা হলে কেন শুধু শুধু নন পোলার সিরামিক ক্যাপ ব্যবহার করব? নন পোলার ক্যাপের এমন কিছু গুন আছে যা পোলার ক্যাপের নেই-
পোলার ক্যাপের লিকেজ কারেন্ট অনেক বেশি হয় যা ভালো না। এটা বেশি হাই ফ্রীকোয়রন্সী তে রেসপন্স করতে পারেনা এলুমিনিয়াম ক্যাপস ১০-১০০ KHZ, এবং ট্যান্টেলাম ক্যাপাসিটর কয়েক মেগা হার্তয পর্যন্ত রেসপন্স করতে পারে।
কিন্তু নন পোলার ক্যাপাসিটর এর লিকেজ কারেন্ট খুব কম এবং ফ্রীকোয়েন্সী রেসপন্স কয়েকশো গিগা হার্তয পর্যন্ত হয়।